নাম – মুহাম্মাদ আবুল হুসাইন। পিতা – মুহাম্মাদ জাহিদুর রহমান। তিনি ১৯৮৪ সালে ১০ই এপ্রিল একটি সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। প্রথমে তিনি সাধারণ শিক্ষায় শিক্ষিত হন । তিনি পর্যায়ক্রমে ২০০০ ইং ও ২০০২ ইং সনে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় বিজ্ঞান বিভাগ থেকে   অত্যন্ত সুনামের সাথে কৃতকার্য লাভ করেন। অতঃপর তিনি  শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, সিলেট  এ পরিসখ্যান বিভাগে বি, এ অনার্সে ভর্তি হন। এর মধ্যে হযরত মাওলানা মুফতী মনসূরুল  হক সাহেব (দাঃবাঃ)এর সাথে তার সম্পর্ক গড়ে উঠে। তার সংস্পর্শে আসার সাথে সাথে তার এলেমের প্রতি সীমাহীন আগ্রহ সৃষ্টি হয়। অতঃপর জীবনের ধারা পাল্টে যায়। বিশ্ববিদ্যালয়ে মাত্র এক সেমিস্টার শেষ করেই তিনি সাধারণ শিক্ষা ত্যাগ করে কওমি মাদ্রাসায় ভর্তি হন। প্রথমে তিনি মিরপুর পল্লবীতে অবস্থিত মাদ্রাসা দারুর রাশাদ এ ভর্তি হন। সেখানে এক বছর লেখাপড়া করার পর মোহাম্মাদপুরে অবস্থিত ঐতিহ্যবাহী জামিয়া রাহমানিয়া আরাবিয়ায় ভর্তি হন। সেখান থেকে অত্যন্ত সুনামের সাথে  ২০০৯ সনে দাওরায়ে হাদীস (মাষ্টার্স) সম্পন্ন করেন। এর পর তিনি অত্র জামেআতেই ইসলামী  আইন তথা আল-ফিকহুল ইসলামী এর উপর দুই বছর পড়াশোনা করে মুফতী সনদ অর্জন করেন। অতঃপর অত্র জামেআতেই উলূমুল হাদীস তথা উচ্চতর হাদীস গবেষনাতে দুই বছর অধ্যয়ন করে অত্যন্ত সুনামের সাথে কৃতকার্য হন।

শিক্ষাজীবন শেষ করে নড়াইল জেলায় অবস্থিত ঐতিহ্যবাহী আল-জামেয়াতুল ইসলামিয়া আশরাফুল উলূম শামুকখোলা মাদ্রাসায় ২০১৩-২০১৫ পর্যন্ত প্রধান মুফতি ও প্রধান মুহাদ্দিস এর দায়িত্ব অত্যন্ত সুনামের সাথে পালন করেন।

6,251 total views, 1 views today