প্রশ্ন : আসসালামু আলাইকুম হযরত আমার প্রশ্ন গুলো হলো ১। ইশার পর বিতির সালাত পড়ে যেই নফল নামায পড়া হয় তা কি বসে পড়া উত্তম? আর উত্তম হলে এটা কি শুধু বিতির পর দুই রাকাআত না যত রাকাআত পড়ুক বসে পড়বে? ২। মসজিদের ছাদ আর ঈদগাহ ময়দানে কি ধানের কাজ বা দুনিয়াবী কাজ করা যায়? যারা করে এদের কি বলা যায় ফিরাতে? ৩। হযরত দুআর দ্বারা কি মানুষের মরণ এর ওসীলা পাল্টায়? যেমন কারো এক্সিডেন্টে মৃত্যু লিখা থাকলে সে যদি দুআ করে, হে দয়াময় আল্লাহ, আমার এক্সিডেন্টে মরণ দিওনা। এমন দুআ করতে থাকলে কি আশা করা যায় অন্য ওসীলায় মরণ হবে? আমরা হযরত স্বাভাবিক ভাবে তো দুআ করি আল্লাহ হঠাৎ মরণ বা এক্সিডেন্ট বা কোনো দূর্ঘটনা মরণ দিও না!

উত্তর :

ওয়া আলাইকুমুস সালাম

১। দাঁড়িয়ে পড়া উত্তম।–সহীহ মুসলিম, হাদীস নং ১৭৪৯; ইলাউস সুনান ৬/১০৯

২। মসজিদের ছাদে তো সম্পূর্ণ নাজায়েয ও হারাম। আর ঈদগাহেও না করা চাই।–ফাতাওয়া হিন্দিয়া ২/৪৬২, ৫/৩২২; রদ্দুল মুহতার ৪/৪৪৫

৩। হ্যাঁ, দুআর দ্বারাও তাকদীরের কিছু অংশ পরিবর্তন হয় যদিও সেটাও লিখা থাকে। দুআ করতে থাকলে আল্লাহ তাআলা ইংশাআল্লাহ অনাকাঙ্ক্ষিত মৃত্যু থেকে হেফাজত করবেন।

690,077 total views, 946 views today