প্রশ্ন : আসসালামু আলাইকুম, মুহতারাম। একদিন এক মাহফিলে শুনেছিলাম যে, এক ব্যাক্তি তার স্ত্রীকে বলেছে যে, শুনছো নাকি পাশের বাসার লোকটা তার স্ত্রীকে কিভাবে তালাক দিয়েছে? এভাবে – এক তালাক, দুই তালাক, তিন তালাক। এতে নাকি উক্ত ব্যক্তির স্ত্রীর উপর তালাক পতিত হয়েছে। মুহতারাম, সেদিন হঠাৎ আমার টেনশন হচ্ছিল এই যে, এরুপ ঘটনা আমার স্ত্রীকে এভাবে বলিনি তো! তাই তাকে জিজ্ঞেস করেছিলাম ঠিক এরুপভাবে যে, তোমাকে আমি তালাক সম্পর্কে কোন ঘটনা বলিনি তো? (সে মাহফিলের কথাগুলো শুনুক আর নাই শুনুক, আমি তাকে অনুরুপভাবে মাহফিলে যেভাবে বলা হয়েছে সেভাবে বলিনি)। (স্ত্রীকে) শুনেছো নাকি ঐ যে পাশের বাসার লোক তার স্ত্রীকে কিভাবে তালাক দিয়েছে, এই যে এরকম এরকম। তালাক সম্পর্কে কোনো ঘটনা বললেও নাকি তালাক হয়ে যায়।” এমতাবস্থায় মুহতারামের কাছে আমার প্রশ্ন- আমার উপরোল্লিখিত কথার মাধ্যমে তালাক হয়ে যায়নি তো? জাযাকাল্লাহ্ খায়রন।

উত্তর :

ওয়া আলাইকুমুস সালাম

না, প্রশ্নে বর্ণিত বিষয়টি সঠিক নয়। এভাবে অপরের তালাক প্রদানের বিষয় বর্ণনা করার দ্বারা নিজের স্ত্রী তালাক হয় না। নিজের স্ত্রীর তালাকের নিয়ত না করা পর্যন্ত তার উপর তালাক পতিত হবে না।–রদ্দুল মুহতার ৩/২৫০; ফাতাওয়া হিন্দিয়া ১/৩৫৩

 

658,246 total views, 2,122 views today