প্রশ্ন : আসসালামু আলাইকুম। অতিরিক্ত প্রশ্নের জন্য আগেই আন্তরিকভাবে মাফ চাচ্ছি। অনেক কষ্টে আছি। আন্সার পেলে ইনশাআল্লাহ সমাধান হবে। প্রত্যকে প্রশ্নবোধক চিহ্নের জন্য দয়া করে আলাদা আলাদা উত্তর আশা করছি। কম্বল বিছিয়ে শুয়েছিলাম ডানকাত হয়ে। স্বপ্নদোষ হয়ে আমার জিন্স প্যান্ট এর পকেটসহ উপরের অংশ ভেজা ছিলো। যথেষ্ট সতর্কতা ছিলো তাও ভেজা অংশ কম্বলে লাগলো কিন্তু পরে ঊঠে দেখি দাগ ছিল না। আধা বালতির কম পরিমান বালতিতে ঐ অংশের বেশি আশপাশ পানিতে চুবিয়ে তুলে চাপ দিয়ে শুকাতে দেই। পরে কাজের মেয়ে ঐ কম্বল আমার বিছানায় রাখলে বেডসিট সহ বেড ভিজে যায়। ১। কম্বল কি পাক হয়েছে? না হলে বেডসিট ও বেডও কি নাপাক? নাপাক কিন বোঝার জন্য দাগ কিংবা ভেজা শর্ত কিনা? এক দেরহামের কম অংশে নাপাকী লাগলে তো পাক যদি এরুপ কয়েকবার লাগে তাহলে কি পাক থাকবে? ২। নাপাকী কয় মাধ্যম পর্যন্ত থাকে? যেমন নাপাক পানিতে মগ ডুবালে মগের কোনে পানি থাকলে অই মগ আবার ভাল পানিতে ডুবিয়ে কাপড় ধুলে কি নাপাক হবে? ৩। নাপাকী যাওয়ার ইয়াকীন হলে পাক। কিন্তু যদি একবার ধুয়ে ইয়াকীন হয় কিন্তু নাপাক থেকে যায় কিন্তু আমি জানি না। তাহলে কি নামায সহীহ হবে? ইয়াকীন ই পাক নাপাকের ভিত্তি কিনা? অনেকবছর ধরে ওয়াস ওয়াসার রোগী হওয়ার কারনে আমি জোর করে ইয়াকীন করি। এক্ষত্রে কি হবে? ৪। একড্রাম পানিতে পেশাবের ছিটা পড়লে কি পাক? কতটুকুর মধ্যে পাক?

উত্তর :

ওয়া আলাইকুমুস সালাম

১। প্যান্টের সাথে কম্বলের শুধুমাত্র স্পর্শের দ্বারাই কম্বল নাপাক হবে না। যদি প্যান্টের নাপাকী দ্বারা কম্বল ভিজে যায় এবং উক্ত নাপাকীর প্রভাব (আছর) কম্বলে প্রকাশ পায় তবে কম্বল নাপাক হয়ে যাবে।

উপরের বর্ণনা অনুযায়ী যদি কম্বল নাপাক হয়ে থাকে তবে তা একবার ধোয়ার দ্বারা পাক হয়নি। সেক্ষেত্রে বেডসিট ও বেডও কি নাপাক গিয়েছে।

আর আপনার কথা “এক দেরহামের কম অংশে নাপাকী লাগলে তো পাক” সহীহ নয়। নাপাকী এক ফোটা লাগলেও তা নাপাক।

২। হ্যাঁ, নাপাক হবে। নাপাক পানিতে মগ ঢুকালে তা ধুয়ে নেওয়া ব্যতীত পাক হবে না।

৩। কাপড়ে তরল নাপাকী লাগলে একবার ধৌত করলে তা পাক হবে না এবং ঐ কাপড় দিয়ে নামায পড়লে নামায সহীহ হবে না। তিনবার ধৌত করা জরুরী। তরল নাপাকীর ক্ষেত্রে তিনবার ধৌত করাকেই ইয়াকীনের স্থলাভিষিক্ত করা হয়েছে।

৪। পানি নাপাক হয়ে যাবে। যদিও এক ফোটা পেশাব পড়ে থাকে।

 

589,947 total views, 654 views today