প্রশ্ন : আসসালামু আলাইকুম। প্রশ্ন-১। ইমাম সাহেব ক্বিরাত পাঠ করা অবস্থায় আমি নামাযের নিয়ত বাধলাম। এখন কী সানা পড়বো নাকি ইমাম সাহেবের ক্বিরাত শুনবো? প্রশ্ন-২। বিতরের সালাতে দোয়া কুনুতের স্থানে ভুলে সানা পড়ে ফেললে সিজদায়ে সাহু দিতে হবে? প্রশ্ন-৩। বিনা অজুতে সিজদা দিলে কাফের হয়ে যায়। এই বিষয়ে বিস্তারিত জানতে চাই। খেলোয়াড়েরা যে মাঠে সিজদা করে এটা কী জায়েয?

উত্তর :

ওয়া আলাইকুমুস সালাম

১। কিরাআত শুনবেন।

২। ছানা পড়ার পর দুআয়ে কুনূত পড়লে সিজদায়ে সাহূ দিতে হবে না। আর দুআয়ে কুনূত না পড়লে সিজদায়ে সাহূ দিতে হবে।

৩। বিশুদ্ধ মত অনুযায়ী কাফের হবে না। তবে কেউ দ্বীনের সাথে ঠাট্টা করত এমনটি করলে কাফের হয়ে যাবে।

আর খেলোয়াড়ের প্রসঙ্গ আপনার জেনে লাভ কি? এটা তো তাদের জানা উচিত। যে খেলা শরীআত সমর্থন করে না সেখানে উল্লাস প্রকাশের জন্য সিজদাহ দেওয়া কিভাবে জায়েয হতে পারে।

600,603 total views, 823 views today