প্রশ্ন : আসসালামু আলাইকুম, শুনেছি হাদীসে নাকি আছে- রসুল (সাঃ) বলেন হাশরের মাঠে কাউসার এর সর্বপ্রথম পান করবে গরীব মুহাজীরগণ এবং যাদের মাথার চুল উস্কখুস্ক। এই কথা শুনার পর বাদশাহ হারুন অর রশীদ আর কোন দিন মাথা আচড়ান নাই। অনেকটা এরকম। তো আমার প্রশ্ন হলো- মাথা ও দাড়ী আচড়ানো হলো সুন্নত কিন্তু উক্ত হাদীসে চুল উস্কখুস্ক রাখারই শ্রেষ্ঠত্য বোঝা যাচ্ছে। তাই আমি এখন আর চুল ও দাড়ী না আচড়ানোর চেষ্টায় আছি? এতে কি সুন্নাতের খেলাফ হবে?

উত্তর :

ওয়া আলাইকুমুস সালাম

হ্যাঁ, হাদীসটি তিরমিজী শরীফে রয়েছে। বাদশাহ হারূনুর রশীদের এমন কোন ঘটনা নির্ভরযোগ্য কোন সুত্রে আমার জানা নেই।

আর উক্ত হাদীস থেকে উস্কখুস্ক চুলের ফযীলাত প্রমাণিত হয় না। হাদীস শরীফে দুনিয়াতে তাদের দারিদ্রতা ও অসহায়ত্ব তুলে ধরা হয়েছে। অর্থাৎ দুনিয়াতে তারা এতই গরীব ছিল যে, মাথা আঁচড়ানোর দিকে তারা মনোনিবেশ করতে পারত না। যেমন আপনি রাস্তাঘাটে কোন অসহায় ফকীরকে পাবেন না, যার মাথা সুন্দর করে তেল দিয়ে আঁচড়ানো।

উল্লেখ্য যে, মাঝে মধ্যে চুল পরিপাটি করা এবং আঁচড়ানো সুন্নাত।