প্রশ্ন : মনে করেন জামাল কামাল ২ ভাই। জামাল বড় আর কামাল ছোট। জামাল তার স্ত্রী নিয়ে ১৫ বছর সংসার করেছে। ইতিমধ্যে ছোট ভাই কামাল তার বড় ভাই এর স্ত্রীকে ভাগিয়ে নিয়ে কোর্ট এ গিয়ে বিবাহ করে। এবং ২ বছরের মত সংসার করে। এমন সময় ছোট ভাই এর থেকে আরো এক সন্তান হয়। এটা জানার পর বড় ভাই আপোষ এ লোক জন ডেকে ঘৃণায় বউকে তালাক দেয়। এখানে উল্লেখ্য বড় ভাই জামাল ইতিপূর্বে তার বউকে কোন প্রকার তালাক দেয়নি। বরং সে ফিরে আসার অপেক্ষা করেছে। এখন প্রশ্ন হল ১। ১ম স্বামী থেকে কোন প্রকার তালাক না নিয়ে তার ২য় বিবাহ শুদ্ধ হয়েছে কিনা? ২। যদি ছোট ভাই এর সাথে হওয়া বিবাহ শুদ্ধ না হয় তবে সন্তান কার বলে গন্য হবে? ৩। এখন বড় ভাই তালাক দিয়ে দিচ্ছে, এমতাবস্থায় তাদের ছোট ভাই তাকে নিয়ে সংসার করতে চায় তাহলে কি আবার বিয়ে করে নিতে হবে? তাদের কথা হল ভুল তো হয়েই গেছে এখন সমাধান কি?

উত্তর :

প্রিয় দ্বীনী ভাই, উত্তর দিতে কিছুটা বিলম্ব হওয়ায় আন্তরিকভাবে দুঃখিত।
১। না, উক্ত বিবাহ সহীহ হয়নি।
২। উক্ত সন্তান ছোট ভাই বড় ভাইয়ের বউকে ভাগিয়ে নিয়ে যাওয়ার কতদিন পরে হয়েছে? অর্থাৎ ছোট ভাই যে তার ভাবিকে নিয়ে অবৈধ সংসার শুরু করেছে, এই সংসার শুরুর কতদিন পরে বাচ্চা হয়েছে? এটা জানানোর পরেই আপনার প্রশ্নের উত্তর দেওয়া হবে ইংশাআল্লাহ।
৩। হ্যাঁ, বড় ভাই তালাক দিলে স্ত্রীর ইদ্দত পার হবার পর চাইলে ছোট ভাই বিবাহ করতে পারে।
উল্লেখ্য যে, এভাবে বিবাহ বহির্ভূত জীবন যাপন করায় উভয়ে মূলত এতদিন যিনায় লিপ্ত ছিল। তারা উভয়ে আল্লাহ তাআলার নিকট খালেছভাবে তাওবা করে নিবে।
সুত্রসমূহঃ রদ্দুল মুহতার ৩/২৩০; ফাতাওয়া হিন্দিয়া ১/৩৪৮

598,066 total views, 343 views today