প্রশ্ন : আসসালামু আলাইকুম, আমার মা খালা ৫ জন এবং একজন মামা। আমার নানা নানী মারা যাওয়ার পর যখন খালারা ওয়ারিশের সম্পত্তি নিতে চাইলো তখন আমার মামা ইমোশনকে টেকনিক হিসেবে ব্যবহার করে। তিনি মা খালাদের সাথে ঠিক মতো কথা বলেন না তাদের বাড়িতে যান না এবং এলাকার মানুষদের দিয়ে বলবলি শুরু করেন যে বাপের বাড়ির সম্পদ কি মেয়েরা কখনো নেয়। পরবর্তীতে লজ্জায় আমার মা এক বিঘা এবং আমার এক খালা ১০ শতাংশ জমি মামাকে লিখে দেয় কিন্তু অন্য খালারা কিছু দেয়নি। এখন আমার মা আবার সর্বশেষ এক বিঘা জমি মামাকে লিখে দিতে চাচ্ছে। আমার মায়ের কথা হলো “আমি বাপের বাড়ির সম্পত্তি নিতে পারবো না। বাপের বাড়ির সম্পত্তি নিলে মানুষ আমার দুর্নাম করবে।” এখন আমার প্রশ্ন হলো আমি তার সন্তান আমাকে না দিয়ে তার ভাইকে জমি এভাবে লিখে দিচ্ছে এটা শরীয়তের দৃষ্টিতে কতটুকু ঠিক হচ্ছে একটু জানাবেন?

উত্তর :

না, সন্তানদেরকে বঞ্চিত করে এভাবে ভাইকে সব সম্পদ লিখে দেওয়া ঠিক হচ্ছে না।

বরং এভাবে করার দ্বারা আপনার মা আপনার ভাইকে আরো বিপদে ফেলছেন। কেননা মনের সন্তুষ্টির বিপরীতে এভাবে লিখে দেওয়ার দ্বারা আপনার মামা কিয়ামতের দিন ভয়াবহ বিপদে পড়বেন। মনের সন্তুষ্টি ব্যতীত চক্ষুলজ্জার কারনে কাউকে কিছু দিলে তা তার জন্য হালাল হয় না। তাছাড়া বোনদেরকে বঞ্চিত করা এখন সমাজে একটি মহামারীর আকার ধারণ করেছে। এ বিষয়ে সংস্কার ও পরিবর্তন একান্ত জরুরী। তাই আপনার মা খালাদের উচিত তাদের সম্পত্তি বুঝে নিয়ে আসা।

নিম্নোক্ত লিঙ্কে আপনি এ ব্যাপারে আরো জানতে পারবেন-

http://muftihusain.com/ask-me-details/?poId=1539

 

589,933 total views, 640 views today