প্রশ্ন : আসসালামু আলাইকুম হযরত আমার প্রশ্ন গুলো হলো:-১;প্রাণ’আর এফ এল’সিজান’প্রথম আলো পত্রিকা এগুলো কি ব্যবহার করা যাবে না?এগুলো তো নাকি কাদিয়ানিদের?আচ্ছা হযরত কাদিয়ানীদের ব্যবসায়িক উপরক্ত কো: গুলোতে কি কাজ’চাকরী করা হারাম?বেতন এর টাকা হারাম হবে?এই সাথে যেমন প্রাণের প্রোডাক্ট ব্যবহার করা কি রাসুল (সা:) দুষমন কে সাহায্য করা হবে?ব্যাখা টা এভাবে দেই অনেকে যে কাফেররা ব্যবসা হিসেবে পণ্য বিক্রি করে আর কাদিয়ানীরা পণ্য ইসলামের ক্ষতি করতে ব্যয় করে?এটা কি ঠিক আছে?২:আর এক প্রশ্ন হলো হযরত হিন্দু’কাফের দের দোকান থেকে কি পণ্য কিনা নাজায়েজ?সবসময় বা সাময়িক কি কিনা যাবে?

উত্তর :

ওয়া আলাইকুমুস সালাম ওয়া রহমাতুল্লাহ,

মাফ করবেন, উত্তর দিতে সঙ্গত কারনে কিছুটা বিলম্ব হল।

১। হ্যাঁ, প্রাণ ও আর এফ এল এর মালিক কাদিয়ানী। কাদিয়ানীরা সর্বসম্মতিক্রমে কাফের, মুরতাদ ও যিনদীক। তাদের হুকুম অন্যান্য অমুসলিমদের চেয়ে মারাত্মক ও কঠিন। তাদের সাথে যে কোন ধরনের সম্পর্ক রাখা, উঠা-বসা করা, সৌহার্দ্য-সম্প্রীতি রাখা, মুসাফাহা করা এবং তাদের সাথে খাওয়া দাওয়া করা ইত্যাদি নাজায়েয ও হারাম। আর কাদিয়ানীদের একটা সাধারণ নীতি হল তারা তাদের আয়ের একটা নির্ধারিত অংশ (সাধারণত ১০%) উক্ত ধর্ম ও মত প্রচারে ব্যয় করে থাকে। তাই ঈমানী ঘৃণা প্রকাশের জন্য কোন মুসলমানের কাদিয়ানীদের কোন প্রতিষ্ঠানে চাকরি না করা চাই। তবে কেউ চাকরি করলে বেতন হালাল হবে।

অনুরূপভাবে তাদের সকল প্রোডাক্টও মুসলমানদের জন্য বর্জন করা উচিত। তবে তা ব্যবহার করা হারাম নয়।

আর প্রথম আলো পত্রিকা প্রয়োজনে পড়া যেতে পারে। তবে পত্রিকা পড়ার ক্ষেত্রে চক্ষুর হেফাজত করা চাই।– সূরা আল ইমরান, আয়াত ২৮; রদ্দুল মুহতার ৩/৩০১;তাতারখানিয়া ৫/৫৫৮আহসানুল ফাতাওয়া ১/৪৬; দারুল উলূম দেওবন্দ, অনলাইন ফাতওয়া নং ৪৯৭০২।

২। হিন্দু বা অমুসলিমদের দোকান থেকে পণ্য ক্রয় করা জায়েয। তবে মুসলমানদের সাথেই লেনদেন করা উত্তম।– সহীহ মুসলিম, হাদীস নং ৫৮৩৪; ফাতাওয়া হিন্দিয়া ৫/৩৪৭; হিদায়া ২/৬০৩।

668,876 total views, 2,185 views today