প্রশ্ন : ১। জনাব,আমি একজন জেনারেল শিক্ষিত লোক। তাবলিগ জামাতের সংস্পর্শে এসে সুদের ভয়াবহতা উপলবদ্ধি করি। দুটি সন্তান স্ত্রী নিয়ো আমাদের পরিবার। আমি একটি ফানেন্স কম্পানিতে মার্কেটিং ডিপার্টমেন্টে চাকুরী করি। কাজ হচ্ছে ক্লায়েন্টদেরকে আমানত (ফিক্সড ডিপোজিট) করানো। এতে আমি বেতনের পাশাপাশি কিছু কমিসনও পাই। এতে আমার সংসার চলে যায়। যেহেতু এটি সুদ ভিত্তিক কম্পানী এবং আমার কাজটিও সরাসরি সুদের হার প্রচারের সাথে সম্পৃক্ত। এখন আমার কি করনিয়?আমার আর কোন আয়ের উৎস নেই।২।জনাব,আমি সম্প্রতি (দেড় বৎসর) একদম নতুন একটি মার্কেটে একটি দোকান নিয়ে চাকুরীর পাশাপাশি ব্যবসার ফিকির করছি। একদম নতুন মার্কেট তাই বেচাবিক্রয় নেই বললেই চলে। নিজের পকেটের টাকা খরচ করে দোকানের খরচ চালাতে হয়। মাঝে মাঝে বেতনের টাকা থেকে দোকানের কিছু কিছু মালামাল ও তুলছি কারন বর্তমানে আমার নিকট বর্তমানে আর কোন রাস্তা খোলা নেই। আমার দোকানটি একটি প্রসাধনীর দোকান। আমার জন্য এখন করনিয় কি।

উত্তর :

১+২। প্রশ্নে উল্লেখিত কোম্পানিতে চাকরি করা জায়েয নয়। এখন আপনি অন্য কোন হালাল চাকরির জন্য আপ্রান চেষ্টা করে যাবেন। যদি আপনার জীবন যাপনের অন্য কোন উপায় না থাকে তবে দুআ, তাওবা ও ইস্তেগফার করতে থাকবেন। আর অন্য চাকরি পাওয়া মাত্রই উক্ত চাকরি ছেড়ে দিবেন এবং আল্লাহ্‌ তাআলা তাওফীক দিলে উক্ত চাকরি থেকে অর্জিত সম্পদ ধীরে ধীরে সদকাহ করে দিবেন।

উল্লেখ্য যে, অধিকাংশ মানুষ এক্ষেত্রে অন্য চাকরি খুঁজার বাহানায় দীর্ঘ দিন পার করে দেন। আল্লাহ্‌ তাআলার সাথে যুদ্ধ করার এবং নিজের মায়ের সাথে যেনা করার সমতুল্য জঘন্যতম গোনাহের সাথে নিজেকে জড়িয়ে রাখেন। তার জন্য উক্ত চাকরি করা জায়েয নয়। বরং যে ব্যক্তি বেকার ব্যক্তির ন্যয় হন্যে হয়ে অন্য চাকরি খুঁজতে থাকে তার জন্যই উক্ত চাকরি ইস্তেগফারের সাথে জায়েয।–সূরা বাকারাহ, আয়াত নং ২৭৯; সহীহ মুসলিম, হাদীস নং ৪১৭৭; ফাতাওয়া হিন্দিয়া ৫/৩৪২,৩৪৩; তাকমিলাতু ফাতহিল মুলহিম ১/৬১৯; ফাতাওয়া উসমানী ৩/৩৯৩-৩৯৬।

690,360 total views, 242 views today