প্রশ্ন : আসসালামু আলাইকুম হযরত আমার প্রশ্ন গুলো হলো:১;সুরা ইয়াসিন,সুরা আর রাহমান কিভাবে তাড়াতাড়ি মুখস্থ করা যাবে?আমি জেনারেল লাইনের স্টুডেন্ট,বাংলা সরাসরি মুখস্থ করে এরপর ভালো আলেম এর কাছ থেকে বা শুনে আরবী সহিহ উচ্চারন শিখে নিবো?এটা কেমন,আমি তবে কোরআন পড়তে পারি;২/হযরত আমার আর এক প্রশ্ন হলো যেই মুসলমান শত বলার পর ও নামাজ পড়ে না,সে ক্ষেত্রে কি করণীয়?তার সাথে উঠা বসা লেনদেন চলা পিরা কম করলে কি গুনাহ হবে যদি রিলেটিভ বা প্রতিবেশী হয়?৩য় প্রশ্ন হলো স্ত্রী নামাজী স্বামী নামাজ পড়ে না,জুম্মার ও খোজ নেই,সারা বছর ইবাদতের খোজ নেই?এই ক্ষেত্রে স্ত্রী করণীয় কি?স্ত্রী ছেড়ে চলা আসা উচিত হবে?ইবাদত না করলে?

উত্তর :

ওয়া আলাইকুমুস সালাম

১। কুরআন শরীফ বাংলা উচ্চারণে তিলাওয়াত করা এবং মুখস্ত করা নাজায়েয ও হারাম। এর দ্বারা কুরআন বিকৃত হয় কেননা আরবী অক্ষরসমূহের বেশ কিছু বর্ণ বাংলা ভাষায় উচ্চারণ অসম্ভব। আর মাদ, গুন্না তো আছেই। কাজেই সহীহ শুদ্ধ আরবী উচ্চারণেই সূরা ইয়াসীন মুখস্ত করবেন। প্রয়োজনে বিশুদ্ধভাবে তিলাওয়াত করতে পারে এমন কোন আলেম বা ক্বারীর সহযোগিতা নিবেন।– শুআবুল ঈমান, হাদীস নং ২৬৭৮; ইতকান ২/১৭১; জাওয়াহিরুল ফিকহ ২/৬৭-১০০।

২। নিরাশ না হয়ে দাওয়াত চালিয়ে যেতে থাকুন এবং আল্লাহ্‌ তাআলার নিকট তার জন্য দুআ করতে থাকুন। তবে তার সাথে উঠা-বসা ছেড়ে দিলে যদি সে ফিরে আসে তবে তা করতে পারেন।–সূরা যারিয়াত, আয়াত ৫৫, সুনানে আবূ দাউদ, হাদীস নং ৪৬৮৩।

৩। এমতাবস্থায়ও উত্তম হল তাকে মহব্বত ও হেকমতের সাথে বুঝাতে থাকা। -আন-নাহরুল ফায়েক ২/১৯৯; আল বাহরুর রায়েক ৬/২৭৩; ফাতওয়ায়ে দারুল উলূম দেওবন্দ ৯/৩৭

667,947 total views, 1,256 views today