মাসআলাঃ সাহরী খাওয়া সুন্নত এবং ইহা একটি বরকতপূর্ণ কাজ । তাই পেট ভরা থাকলেও ফযীলত ও বরকত হাছিলের জন্য অন্তত এক ঢোক পানি হলেও খেয়ে নিবে।

মাসআলাঃ সাহরী এমন সময় খাওয়া শেষ করা সুন্নত যার অল্প কিছু সময় পরে সুবহে সাদিক হয় । তবে এত বিলম্ব করা জায়েয নেই যে, রোযার ব্যাপারেই সন্দেহ ‍সৃষ্টি হয়।

মাসআলাঃ সুবহে সাদিকের পর খানা – পিনা জায়েয নেই। চাই আযান হোক বা না হোক । অনেকে মনে করে আযানের পূর্ব পর্যন্ত খাওয়া যায় । যা সম্পূর্ন ভুল ধারনা । কেননা আযান সুবহে সাদিকের পরে দেওয়া হয়। কাজেই কেউ যদি আযানের পূর্ব পর্যন্ত খেতে ‍থাকে তবে তার খাওয়ার শেষ অংশ সুবহে সাদিকের মধ্যে পড়াই স্বাভাবিক । এমতাবস্থায় তার ঐ দিনের রোযা পরবর্তিতে ক্বাযা করে নেওয়া জরুরী।

মাসআলাঃ কোন কারনে সাহরী খেতে না পারলেও রোযা রাখতে হবে। একারনে রোযা ছেড়ে দেওয়া মারাত্ত্বক গুনাহ।

 256 total views,  2 views today