প্রশ্ন : আসসালামু আলাইকুম ছেলের জন্মসূত্রে দেশের বাড়ি(পিত্রালয়) কুষ্টিয়ায়, ঢাকায় বিয়ে করে ভাড়া বাসায় থাকেন। স্বামী-স্ত্রী(কুমিল্লার) দুইজনে চাকরি করেন। ভবিষ্যতে ফ্ল্যাট কিনার জন্য টাকা জমাচ্ছেন এবং এখানে(ঢাকায়) বাকি জীবন কাটিয়ে দেবার নিয়ত করেছেন। কুষ্টিয়ায় আসা যাওয়ার মধ্যে আছেন। সেখানে(কুষ্টিয়ায়) ফার্নিচার, সাইড ব্যবসা, ব্যাংক একাউন্ট, মা-বাবা, আত্মীয়-স্বজন আছে তাহলে- ১। উনাদের জন্য ঢাকা ও কুষ্টিয়া ওয়াতনে আসলী না ইকামত? ২। ঢাকায় যদি ইকামত হয়, তবে কেন? ৩। ওয়াতনে আসলীতে জায়গা, নিজের বাড়ি, আসা যাওয়া ও চিরস্থায়ী বসবাসের নিয়ত কি একসাথে পূরণ হতে হবে, নাকি যে কোন একটি পূরণ হলেই হয়?

উত্তর :

ওয়া আলাইকুমুস সালাম
১+২। ঢাকায় যদি টানা কমপক্ষে পনের দিন থেকে থাকেন তবে ঢাকা ওয়াতনে ইকামত। কেননা ঢাকায় আপনাদের নিজস্ব বাসস্থান নেই। আর প্রশ্নোক্ত ক্ষেত্রে কুষ্টিয়া আপনার ওয়াতনে আসলীই থাকবে।- আল বাহরুর রায়েক ৪/৩৪১; আদ্দুররুল মুখতার ২/১৩১

৩। ওয়াতনে আসলী নির্ধারনের ক্ষেত্রে ব্যক্তির নিয়তই মূল। আসা যাওয়া ও স্থায়ীভাবে বসবাসের নিয়ত মূলত কোন স্থানকে ওয়াতনে আসলী হিসেবে গ্রহন করাকে স্পষ্ট করে। কাজেই কেউ যদি তার কোন বাড়িকে ওয়াতনে আসলী হিসেবে বহাল রাখে এবং সেখানে আসা যাওয়া করে তবে তা ওয়াতনে আসলী গণ্য হবে। প্রশ্নোক্ত ক্ষেত্রে আপনার যেহেতু কুষ্টিয়ায় থাকার ব্যবস্থা ও ফার্নিচার রয়েছে এবং আপনার জন্মস্থান সেখানে আবার আপনার পিতামাতাও সেখানে থাকেন এর পাশাপাশি নিয়মিত আসা-যাওয়া করেন তাই কুষ্টিয়া আপনার ওয়াতনে আসলী বহাল থাকবে।-রদ্দুল মুহতার ২/১৩১; ফাতাওয়া উসমানী ১/৫৪৬

এ ব্যাপারে আরো বিস্তারিত জানতে চাইলে এই লিঙ্ক ভিজিট করতে পারেন।
http://muftihusain.com/article/%E0%A6%B8%E0%A6%AB%E0%A6%B0-%E0%A6%93-%E0%A6%95%E0%A6%B8%E0%A6%B0-%E0%A6%B8%E0%A6%82%E0%A6%95%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A6%BE%E0%A6%A8%E0%A7%8D%E0%A6%A4-%E0%A6%9C%E0%A6%B0%E0%A7%81%E0%A6%B0%E0%A7%80/

 832,588 total views,  952 views today