প্রশ্ন : আমার নাম হোসেন, বয়স ২৮ সরকারী চাকুরী করি। গত বছর আমার কলীগ মনীরা, বয়স ২৮ ডিভোর্সি (১৯ বছর বয়সে পারিবারিক ভাবে তার প্রথম বিয়ের ডিভোর্স হয়েছিল) তার সাথে ভাললাগা থেকে আমার এবং মনীরার পরিবারের কাউকে না জানিয়ে আমার অন্য কলীগদের নিয়ে কাজী অফিসে গিয়ে বিয়ে করে ফেলি। দুজনের সাক্ষী আমাদের কলীগরাই হয়েছিল। আমার স্ত্রী মনীরার বাবা বেঁচে নেই। তার চাচারা সবাই প্রবাসী। আর যারা বাবার গোত্রের আছেন ওদের সাথে জমি নিয়ে বিরোধ তাই মনীরার পরিবারের সাথে চাচার গোত্রের কোন সম্পর্ক নেই বললেই চলে। মনীরার মা বেঁচে আছেন, তার ছোট দুই ভাই এবং দুই বোন আছেন। আমাদের বিয়ের আগে মনীরার মা আমাদের সম্পর্কের কথা জানতেন এবং উনি এতে রাজি ছিলেন। আমার বাবা মা দুই ছোট বোন নিয়ে পরিবার। কাজী বিয়ে পড়ানোর পরে মনীরা তার মা মানে আমার শাশুড়িকে ফোন দিয়ে সব জানায় এবং উনি খুব খুশি হয়ে দোয়া করেন। পরে অবশ্য আমার পরিবারও বিয়েটাতে সম্মতি দিয়ে মনীরাকে ঘরে তুলে নেয়। এখন আমাদের বিয়েটা কি শুদ্ধ হয়েছে? আমাকে একজন বলেছে বিয়ে নাকি আবার পড়াতে হবে কারন কনের সাক্ষী হিসেবে নাকি তার বাবার পক্ষ থেকে আত্বীয় থাকা লাগবে। অনুগ্রহ করে উত্তর দিবেন।

উত্তর :

আপনাদের বিবাহ শুদ্ধ হয়েছে। উক্ত ব্যক্তির কথা সঠিক নয়।–হিদায়া ২/৩০৬; তাতারখানিয়া ২/৫৮১

 821,080 total views,  732 views today