প্রশ্ন : আসসালামু আলাইকুম ১। “হযরত মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে সৃষ্টি না করলে কোনো কিছু সৃষ্টি করা হত না” এরকম কোনো হাদীস আছে কি? আর যদি না থাকে তাহলে এই কথা বললে কি গুনাহ হবে? ২। অনেক দিন আগে আমি সিমের দোকান থেকে একটা মোবাইলের সিম কিনছিলাম। কিছুদিন পর একজন আমাকে ফোন দিয়ে বলে সিমটা আমার। অনেক দিন বন্ধ থাকার কারনে কারনে সিমটা কোম্পানি নতুন করে তৈরী করে বিক্রি করছে। সে আমার কাছে সিমটা চায় আমি তাকে বলছি সিমটা তো আমি দোকান থেকে কিনেছি। আমি তাকে দেইনি। এতে কি আমার গুনাহ হবে? ৩। কয়েক বছর আগে আমি একটা সিম কিছু মাস বন্ধ করে রেখে দেই। পরে আমি যখন সিমটা মোবাইলে তুলি তখন দেখি সিম অন্য জন ব্যবহার করছে। আমার ঐ সিমটা অকার্যকর হয়ে গেছে। তখন আমি ঐ নং এ ফোন দেই। তখন ঐ লোক বলে আমি সিমটা কিনেছি। তখন আমি আমার সিমের সব কাগজ নিয়ে কাস্টমার কেয়ারে গিয়ে সিমটা আবার আমার নামে করে নেই। সিমে ঐ লোকের কেনা কিছু মেগাবাইট ছিলো সেটা আমি ব্যবহার করি। উক্ত কাজ করার দ্বারা কি আমার গুনাহ হয়েছে? আর গুনাহ হইলে এখন আমি কিভাবে মাফ চাইবো?

উত্তর :

ওয়া আলাইকুমুস সালাম
১। না, নেই। এটি একটি জাল, বানোয়াট ও ভিত্তিহীন বর্ণনা।- আল মাসনূ, পৃষ্ঠা ১৫০; কাশফুল খফা ২/১৬৪; তাযকিরাতুল মাউজূআত, পৃষ্ঠা ৮৬

হ্যাঁ, এমন কথা বলা গোনাহ। হাদীস শরীফে আছে রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ইরশাদ করেন “যে আমার নামে এমন কোন বলবে যা আমি বলিনি তাহলে সে যেন তার ঠিকানা জাহান্নাম বানিয়ে নেয়”।–সহীহুল বুখারী, হাদীস নং ১০৯

২+৩। আসলে এক্ষেত্রে বিটিসিএল ও মোবাইল অপারেটরদের নীতিমালা মূল বিষয়। আর মাসআলাও তার ভিত্তিতে আবর্তিত হবে। অর্থাৎ যদি মোবাইল অপারেটরদের এমন কোন নীতিমালা (যা সিম রেজিস্ট্রেশন ফরমে দেওয়া থাকবে) থেকে থাকে যে, কেউ কোন সিম নির্দিষ্ট মেয়াদ পর্যন্ত ব্যবহার না করলে তা অকার্যকর হয়ে যাবে তবে তারা পরবর্তীতে ঐ সিম অন্য কারো নিকট বিক্রি করতে পারবে। আর এমন কোন নীতিমালা না থাকলে ঐ সিম মোবাইল অপারেটর কর্তৃক বিক্রি করা বা অন্য কারো জন্য তা তুলা নাজায়েয ও হারাম। সুতরাং মোবাইল অপারেটরদের এমন কোন নীতিমালা থেকে থাকলে আপনার ব্যবহার না করার কারনে অকার্যকর সিমটি পূনরায় তুলা এবং মোবাইল অপারেটরদেরও তা দেওয়া ঠিক হয়নি। এক্ষেত্রে আপনি তার সিম খোয়া যাওয়ার এবং অবশিষ্ট মেগাবাইটের ক্ষতিপূরণ দিয়ে দিবেন। তাকে কোনভাবে পাওয়া না গেলে তাকে ছাওয়াব পৌঁছানোর নিয়তে কোন গরীবকে তা সদকাহ করে দিবেন। -রদ্দুল মুহতার ৫/২৩৫; ফাতাওয়া উসমানী ৩/১২০,১২১

 831,103 total views,  322 views today