প্রশ্ন : আসসালামু আলাইকুম ফাতওয়ায়ে রাহমানিয়ায় ২য় খন্ডে ১৩২ পৃষ্ঠায় আছে- মেয়ে ভেগে গিয়ে বিয়ে করলে, কুফূ বজায় না থাকলে বিবাহ হবে না। আমার এক আত্মীয় (মেয়ে) এক ছেলের সাথে ভেগে গিয়ে কিছুদিন আগে বিবাহ করে, কিন্তু পিতা-মাতা জানার পর তার মেয়েকে নিয়ে আসে এবং ছেলেকে তালাক দিতে চায় এবং পিতা-মাতা মেয়েকে বুঝালে মেয়েও তালাক দিতে রাজি হয়। উক্ত ছেলে নামায-রোযা তো পড়েই না বরং আরো নেশা করে, কিন্ত মেয়ে নামায পড়ে রোযা রাখে। উক্ত ফতোয়ার আলোকে তাদের বিবাহ তো হয় নাই, যদি বিবাহ না হয় তাহলে তো আর তালাক দেয়ার প্রয়োজন নেই। যেহেতু উক্ত বইতে লেখা আছে যে উক্ত বই ফতোয়া দেয়ার জন্য নয়, তাই আপনার শরণাপন্ন হলাম।

উত্তর :

ওয়া আলাইকুমুস সালাম
যদি উক্ত মেয়ে ও তার পরিবার দ্বীনদার হয় এবং ছেলে বদদ্বীন ও ফাসেক হয় তবে সহীহ মত অনুযায়ী উক্ত বিবাহ সংঘটিত-ই হয়নি। তাই ছেলে থেকে তালাক নেওয়ারও প্রয়োজন নেই। সুবিধামত কোথাও মেয়েকে বিবাহ দিয়ে দিবে।–রদ্দুল মুহতার ৩/৫৯, ৮৪, ৯৪, ৮৯; ফাতাওয়া হিন্দিয়া ১/২৯২; আল বাহরুর রায়েক ৩/১৯৪; ফাতাওয়া মাহমূদিয়া ১১/৬১৫,৬১৬; ফাতওয়ায়ে দারুল উলূম দেওবন্দ ৮/১৫৪

 832,951 total views,  166 views today