প্রশ্ন : মুহতারাম, আমি তালাকের বিষয়ে একটি মাসআালা জানতে চাচ্ছি। আমার এক ভাই তার স্ত্রী-সন্তান নিয়ে প্রবাসে বসবাস করে। কিছুদিন পূর্বে তিনি তার স্ত্রীকে রাগের মাথায় বলে “আমি যদি তোমার এই ট্যাব (মোবাইল) ধরি তবে তুমি ৩ তালাক”। তার কিছুদিন পর সে বাসায় ফিরে দেখে তার স্ত্রী ঐ ট্যাবের সাহায্যে কোন কাজ করছে, তখন তালাকের বিষয় স্বরণে না থাকায় ভূলে সে দু’আঙ্গুল লাগিয়ে ট্যাব ধরার চেষ্টা করে। কিন্তু তার স্ত্রীর তালাকের বিষয়টি মাথায় থাকায় তাকে ট্যাব ধরতে না দিয়ে সাথে সাথেই তা সরিয়ে ফেলে। এখানে দুটি বিষয় উল্লেখযোগ্য। ১। ট্যাব (মোবাইল) টি স্পর্শ করার সময় তালাকের বিষয়টি তার স্বরণে ছিল না, ভূলে গিয়েছিলো, যা সম্পুর্ণ ভূলের কারণে। ২। সে তালাকের শর্ত দেয়ার ক্ষেত্রে বলেছিল “আমি যদি ধরি” যা দ্বারা উদ্দেশ্য ছিলো ট্যাব হাতে নেয়া, কিন্তু এখানে সে নিজ হাতে নিতে পারেনি, হাতে থাকা অবস্থায় আঙ্গুল লাগিয়েছিল মাত্র। এখন তারা খুব পেরেশানিতে ভূগছে। অনূগ্রহ পূর্বক যথাসম্ভব দ্রুত সময়ে এর বিধান জানিয়ে সাহায্য করবেন।

উত্তর :

প্রশ্নে আপনি উল্লেখ করেছেন আপনার ভাই বলেছিল “আমি যদি তোমার এই ট্যাব (মোবাইল) ধরি তবে তুমি ৩ তালাক”। আর সে পরবর্তীতে ট্যাব ধরেনি। কেবল দু আঙ্গুলে স্পর্শ করেছিল। প্রশ্নের বর্ণনা সঠিক হলে উক্ত ব্যক্তির স্ত্রীর উপর কোন তালাক পতিত হয়নি।
তবে ভবিষ্যতে কখনো সে তা ধরলে তার স্ত্রীর উপর তিন তালাক পতিত হবে। তাই এ ব্যাপারে খুব সতর্ক থাকতে হবে। এমতাবস্থায় উক্ত ট্যাবটি মনে হয় বিক্রি করে দিলেই ভালো হয়।
উল্লেখ্য যে, যখন তখন এধরণের কথাবার্তা বলা ঠিক নয়। এর ফলে অধিকাংশ ক্ষেত্রে দুর্বিষহ জীবন যাপন করতে হয়।–ফাতাওয়া হিন্দিয়া ১/৪২০; আলবাহরুর রায়েক ৪/৫

 821,075 total views,  727 views today