প্রশ্ন : শেষ যামানায় উম্মতের যে ৭২ বা ৭৩ দলের কথা বলা হয়েছে সেই হাদীসটি বিস্তারিত জানালে উপকৃত হতাম। এটি কি শুধু মুসলমানদের মধ্য থেকে নাকি সব ধর্মের লোকদের মধ্য থেকেই? সেই ৭২ বা ৭৩ দলের মধ্য থেকে বর্তমানে সঠিক দল কোনটি? তাবলীগ জামাতের ব্যাপারে অভিমত কি? বর্তমানে প্রতিষ্ঠিত জিহাদি দলগুলোর ব্যাপারেই বা অভিমত কি?

উত্তর :

হাদীসটি নিম্নরূপ-
عن عبد الله بن عمرو قال قال رسول الله صلى الله عليه و سلم ليأتين على أمتي ما أتى على بني إسرائيل حذو النعل بالنعل حتى إن كان منهم من أتى أمه علانية لكان في أمتي من يصنع ذلك وإن بني إسرائيل تفرقت على ثنتين وسبعين ملة وتفترق أمتي على ثلاث وسبعين ملة كلهم في النار إلا ملة واحدة قالوا ومن هي يا رسول الله قال ما أنا عليه وأصحابي

অর্থঃ হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে আমর (রাঃ) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ইরশাদ করেন, বনী ইসরাঈলের যে অবস্থা এসেছিল আমার উম্মতেরাও ঠিক তাদের অবস্থাতে পতিত হবে। এমনকি তাদের কেউ যদি প্রকাশ্যে তার মায়ের সাথে ব্যভিচারে লিপ্ত হয়ে থাকে তবে আমার উম্মতেরও কেউ তাতে লিপ্ত হবে। নিশ্চয়ই বনী ইসরাঈলরা বাহাত্তর দলে বিভক্ত হয়েছে আর উম্মত বিভক্ত হবে তিহাত্তর দলে। এদের একটি দল ছাড়া সব দলই হবে জাহান্নামী। সাহাবীগণ জিজ্ঞাসা করলেন, হে আল্লাহর রাসূল, এরা কোন দল? তিনি বললেন, আমি এবং আমার সাহাবীরা যে দলের উপর প্রতিষ্ঠিত।–সুনানে তিরমিজী, হাদীস নং ২৬৪১
উক্ত ভ্রান্ত দলগুলো মুসলমানদের মধ্য থেকেই। তারা হচ্ছে মুতাযেলা (এদের ২০ টি শাখা), শিয়া (এদের ২২ টি শাখা), খারিজিয়া (এদের ২০ টি শাখা), মুরজিয়া (এদের ৫ টি শাখা), নাজ্জারিয়া (এদের ৩ টি শাখা), জাবরিয়া, মুশাব্বিহা। মোট ৭২ টি শাখা হল।
সঠিক দলটি হল, যারা আল্লাহর রাসূল ও তার সাহাবায়ে কেরামের মতাদর্শের উপর প্রতিষ্ঠিত। অনেকেই মনে করেন তাবলীগ একটি দল, কউমী মাদরাসা আরেকটি দল, সহীহ খানকাহে মেহনতকারীরা আরেকটি দল ইত্যাদি। এটা একটা শতভাগ ভুল ধারণা। সবগুলোই নাজাতপ্রাপ্তদের একই দলের অন্তর্ভুক্ত। হ্যাঁ, এদের প্রত্যেকের মধ্যে কোন বিশেষ মেহনতের আধিক্যের কারনে নাম বা পরিচয়ের ক্ষেত্রে কোন একটি দিক প্রাধান্য পেয়েছে। কিন্তু প্রত্যেকেই অন্যটিকে হক ও জরুরী মনে করে। তাছাড়া সবার মৌলিক আকীদাহ কিন্তু একই। কর্মপদ্ধতির প্রাধান্যের ক্ষেত্রে তাদের কিছুটা বিচিত্রতা রয়েছে মাত্র।
আর জিহাদি দলগুলো বলতে কাদের বুঝাতে চেয়েছেন আর তাদের আকীদাই বা কি তা বিস্তারিতভাবে জানানোর পরে উত্তর দেওয়া হবে ইংশাআল্লাহ।

 827,948 total views,  463 views today