প্রশ্ন : আসসালামু আলাইকুম। গতকাল ঢাকা থেকে সাভার বাড়িতে এসেছি। যে বাসে এসেছি সেটি কাউন্টার বাস ছিলো। অনেক দূর পাল্লার বাস। আমি যে সিটে বসে ছিলাম অনেক দূর আসার পরে একটি কাউন্টার স্টোপেজে কিছু যাত্রী বাসে উঠে। তাদের হাতে টিকিট ছিলো। তাদের মধ্যে একজন বললো এটা আমাদের সিট, টিকিতে তাই লেখা আছে, ফলে আমি উঠে পেছনে বসলাম, পরে আবার দুজন যাত্রী বললো এটা আমাদের সিট তাই উঠে আবার অন্য সিটে গিয়ে বসলাম। কিন্তু আমি তো টিকিট কাটিনি। ঢাকার শ্যামলী থেকে সিগন্যালে যখন বাসটি থামে তখন কন্টেকদারকে বললাম সাভার যাবে কি? সে বললো যাবে ভাড়া ১০০/- টাকা। আমি তাতে রাজি হয়ে বাসে উঠেছিলাম এবং ভাড়াও কন্টেকদারকে দিয়ে দিয়েছি। আমার প্রশ্ন এখন যদি কন্টেকদার টিকিট না কাটে বা মালিককে ভাড়া না দেয় তবে এর জন্য কি আমি দায়ী থাকবো?

উত্তর :

ওয়া আলাইকুমুস সালাম

এক্ষেত্রে আপনি ভাড়া দেওয়ার দ্বারা দায়মুক্ত হয়ে যাবেন ইংশাআল্লাহ। কোন সুপারভাইজার যদি প্যাসেঞ্জারদের প্রদেয় টাকা মালিককে বুঝিয়ে না দেয় বা হিসাব না দেয় তবে এর জন্য সে দায়ী থাকবে। কেননা এখন প্রায় সকল গাড়িতেই চেকারের ব্যবস্থা রয়েছে। কাজেই টিকিটবিহীন কেউ থাকলেও তারা চেকারের গণনার আওতায় চলে আসে। এখন তারা এদিক সেদিক করলে তারাই দায়ী থাকবে।

তবে কোন কোন বাস সাধারণত মধ্যখান থেকে কখনো যাত্রী উঠায় না। তারা কেবল নির্ধারিত কাউন্টার থেকে যাত্রী উঠায়। আবার বাসের ভিতরেও লিখা থাকে বিনা টিকিটে যাত্রী উঠানো নিষেধ। অন্যদিকে তাদের কোন চেকারের ব্যবস্থাও নেই। সেক্ষেত্রে কাউন্টার ব্যতীত তাদের গাড়িতে না উঠা চাই। যেহেতু তাদের গাড়ির মধ্যে লেনদেনের কোন ব্যবস্থা নেই তাই এক্ষেত্রে অনেকটা নিশ্চিত যে, সে টাকাটা মালিককে বুঝিয়ে দিবে না। কাজেই এটা অন্যায়কে সহযোগিতা করার ন্যায়।

 

 824,325 total views,  1,196 views today