প্রশ্ন : আসসালামু আলাইকুম, ১। আমাদের পরিবারে শুধু আম্মুর নেসাব পরিমান সম্পদ আছে, তা ছাড়া আর কারো নেসাব পরিমান সম্পদ নাই। ঈসালে সাওয়াবের জন্য যে তোবারক/খাবার দেয়া হয় তা তো আমার আম্মু বাদে সবাই খেতে পারবো, যেহেতু আমাদের নেসাব পরিমান সম্পদ নাই। (আমি এবং আব্বু পৃথক পৃথক চাকরী করি এবং যা হয় সব আম্মুকে মালিক বানিয়ে দিয়ে দেই)? ২। আমাকে একজন ঈসালে সাওয়াবের মাহফিলে দাওয়াত দিয়েছে আমি এখন কি করবো?

উত্তর :

ওয়া আলাইকুমুস সালাম

১। যদি আপনারা দুআ বা তিলাওয়াত ইত্যাদি এ জাতীয় কোন ইবাদাত বন্দেগী না করে শুধু খাবার খান তবে ঠিক আছে। আর যদি দুআ বা তিলাওয়াত ইত্যাদি এ জাতীয় কোন ইবাদাত বন্দেগীর ঈছালে সাওয়াব করে খাবার খান তবে জায়েয হবে না। কেননা এটা বিনিময়ের মধ্যে পড়ে, যা নাজায়েয। এর দ্বারা মৃত ব্যক্তিরও কোন ফায়েদা হয় না।

২। যদি তাতে কোন নাজায়েয ও বিদআত কর্মকাণ্ড (যেমন তিন দিন, চল্লিশ দিন নির্ধারণ করা ইত্যাদি) না হয়ে থাকে তবে যেতে পারেন। আর খাবার বিষয়টি প্রথম উত্তর থেকে স্পষ্ট হয়ে যাবার কথা।

সুত্রসমূহঃ রদ্দুল মুহতার ৬/৫৫-৫৮; আল মুগনী ৫/২৩; ফাতাওয়া রশীদিয়া, পৃষ্ঠা ৪১৭

 821,087 total views,  739 views today