প্রশ্ন : ১.আমি একটি বড় মেসে থাকি। প্রায় ৬০ জন লোক একসাথে খাওয়া দাওয়া করি। এজন্য প্রতি মাসে দুইজনকে ম্যানেজার নির্বাচন করা হয় ডাইনিং এর দায়িত্ব পালন করার জন্য। দুইজন ম্যানেজারই ওই মাসের ডাইনিং এর সব দায়িত্ব পালন করে। যেহেতু আমরা মেসে থাকি তাই মাঝে মাঝে ডিম ভাজি করতে বা অন্য কিছুর জন্য ডাইনিং থেকে পেয়াজ, লবন, তেল বা অন্য কিছু নিই। এসবকিছু যে নেই তা অনেক সময় ম্যানেজারকে বলে নেই বা অনেক সময় বলা হয় না। কিন্তু মেসের কর্তৃপক্ষ থেকে এসবকিছু যার যখন দরকার পড়বে এসব নিতে পারবে বলা আছে। আমার প্রশ্ন হল ম্যানেজার থেকে না বলে কোন কিছু নিলে কি চুরি হবে নাকি? ২.বান্দার হক। কি কাজ করলে বান্দার হক নষ্ট হয়? চুরি করলেও কি বান্দার হক নষ্ট হয়?

উত্তর :

১। মেসের সকল সদস্যদের সম্মতিক্রমে সেগুলো নেওয়ার নিয়ম থাকলে নেওয়া যাবে। আর আপনার এই বক্তব্য “কিন্তু মেসের কর্তৃপক্ষ থেকে এসবকিছু যার যখন দরকার পড়বে এসব নিতে পারবে বলা আছে” থেকে বুঝে আসে ম্যানেজার কর্তৃক সাধারণভাবে অনুমতি দেওয়া আছে। কাজেই এগুলো নেওয়ার সময় ম্যানেজারকে বলার প্রয়োজন নেই।

তবে খেয়াল রাখা দরকার, যেসব প্রয়জনে অনুমতি দেওয়া রয়েছে তার বাইরে যেন এগুলো ব্যবহার করা না হয়।

২। বান্দাকে কোনভাবে কষ্ট দিলে, গালি দিলে, গীবত করলে, ইজ্জত নষ্ট করলে, সম্পদ আত্মসাৎ করলে, চুরি করলে ইত্যাদি। আসলে এটা একটা ব্যাপক বিষয়। মোটকথা, খেয়াল রাখতে হবে আমার দ্বারা যেন কোন বান্দা কষ্ট না পায়। বান্দার হক সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে আপনি থানভী (রহঃ) এর হুকুকুল ইবাদ নামক কিতাবটি পড়তে পারেন।

হ্যাঁ, চুরি করলে বান্দার হক নষ্ট হয়।

 821,959 total views,  1,611 views today