প্রশ্ন : আসসালামু আলাইকুম ১.”আল্লাহুম্মা সাল্লিআলা স্যাইয়েদেনা মাওলানা মুহাম্মাদ” এটা কি একটা দুরুদ শরীফ। ২.অযু বা গোসল চলাকালীন সময় পেছনের রাস্তা দিয়ে কোন গ্যাস বের হলে আবার কি প্রথম থেকে অযু বা গোসল করতে হবে? ৩. আয়াতুল কুরসীর গুরুত্ব, ফযীলত সম্পর্কে একটু বলবেন?

উত্তর :

ওয়া আলাইকুমুস সালাম
১। হ্যাঁ।
২। হ্যাঁ, নতুন করে উযূ করতে হবে। তবে পুনরায় নতুন করে গোসল করা জরুরী নয়।
৩। নিম্নে হাদীস শরীফ থেকে আয়াতুল কুরসীর ফযীলাত দেওয়া হল-
عن أبي أمامة قال قال رسول الله صلى الله عليه و سلم من قرأ آية الكرسي في دبر كل صلاة مكتوبة لم يمنعه من دخول الجنة الا ان يموت
অর্থঃ হযরত আবু উমামা রা. থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, যে ব্যক্তি প্রতি ফরজ নামায শেষে আয়াতুল কুরসী পড়ে, তার জান্নাতে প্রবেশ করতে মৃত্যু ছাড়া কোনো কিছু বাধা হবে না।–সুনানে নাসায়ী আল কুবরা, হাদীস নং ৯৯২৮
عن علي بن أبي طالب رضي الله عنه يقول سمعت رسول الله صلى الله عليه و سلم على أعواد المنبر يقول : من قرأ آية الكرسي دبر كل صلاة لم يمنعه من دخول الجنة إلا الموت و من قرأ حين يأخذ مضجعة أمنه الله على داره و دار جاره و دويرات حوله
অর্থঃ হযরত আলী (রা.) বলেন, আমি রাসূলুল্লাহকে সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে মিম্বারের উপর বলতে শুনেছি, যে ব্যক্তি প্রত্যেক ফরজ নামাযের পর আয়াতুল কুরসী নিয়মিত পড়ে, তার জান্নাত প্রবেশে কেবল মৃত্যুই অন্তরায় হয়ে আছে। যে ব্যক্তি এ আয়াতটি বিছানায় শয়নের সময় পড়বে আল্লাহ তার ঘরে, প্রতিবেশীর ঘরে এবং আশপাশের সব ঘরে শান্তি বজায় রাখবেন।–শুআবুল ঈমান, হাদীস নং ২৩৯৫

 826,428 total views,  788 views today