প্রশ্ন : আসসালামু আলাইকুম ১। আবাসিক হলগুলোতে মুসলিম নারীরা অমুসলিম নারীদের সাথে একই রুমে এমন কি একই বেডে থাকতে হয় এক্ষেত্রে পর্দার বিধান কি? ২। সালাতে পায়ের পাতা ঢাকা কি ফরয নাকি শুধু গোড়ালি ঢাকলে চলবে? ৩। প্রয়োজনে কোন কোন জায়গায় মুখ খোলার অনুমতি আছে?

উত্তর :

ওয়া আলাইকুমুস সালাম
১। যথাসম্ভব তাদের সাথে চলাফেরা মেলামেশা এড়িয়ে যেতে হবে। তাদের সাথে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক এবং অন্তরঙ্গতা রাখা হারাম। তবে দ্বীনী দাওয়াতের প্রয়োজনে তাদের সাথে সম্পর্ক অথবা অন্তরঙ্গতা রাখা জায়েয বরং প্রশংসনীয়।
তারা যদি পরপুরুষদের নিকট মুসলিম মেয়েদের চেহারা বা শারীরিক অবস্থার কথা ফুটিয়ে তোলে সেক্ষেত্রে তাদের থেকেও দূরে থাকা কর্তব্য। অন্যথায় প্রয়োজনে তাদের সাথে সহবস্থান করা যেতে পারে।
উল্লেখ্য যে, এভাবে কোন মাহরাম ব্যতীত মেয়েদের জন্য হল বা মেসে নিয়ন্ত্রনহীন ভাবে অবস্থান করা শরীয়ত কখনো সমর্থন করে না। এর ফলে দৈনন্দিন যা কিছু ঘটছে এবং কত বোনদের যে ইজ্জত আবরু নষ্ট হচ্ছে তা কারোই অজানা নয়। দেখুন ইসলামের অন্যতম একটি স্তম্ভ হল হজ। সেই পবিত্র ভুমিতেও কোন মুসলিম মহিলার জন্য একাকী যাওয়া এবং সেথায় একাকী অবস্থান করা সম্পূর্ণ নাজায়েয ও হারাম।–সূরা মায়েদাহ, আয়াত ৫১, ৫৭; সহীহ মুসলিম, হাদীস নং ৩৩৩৩; সুনানে আবূ দাউদ, হাদীস নং ২১৫২; ফাতাওয়া হিন্দিয়া ৫/৩৪৮
২। না, মহিলাদের জন্য নামাযে পায়ের পাতা, গোড়ালি কোনটিই ঢাকা ফরজ নয়। পা টাখনু পর্যন্ত ঢেকে রাখা ফরজ। টাখনুর নিচ থেকে পুরো পা পাতাসহ বেরিয়ে থাকলে কোন সমস্যা নেই।–ইলাউস সুনান ২/১৬৩-১৭০; আল বাহরুর রায়েক ১/৪৬৯
৩। মহিলাদের জন্য কিছু কিছু ক্ষেত্রে প্রয়োজনে চেহারা খোলা জায়েয। যেমন আদালতে সাক্ষী দেওয়ার জন্য, চিকিৎসককে চেহারা দেখানোর প্রয়োজন হলে, রাস্তায় প্রচণ্ড ভিড় হলে ইত্যাদি।

 831,610 total views,  829 views today