প্রশ্ন : ১। কোন ব্যক্তির উপার্জন হালাল-হারাম মিশ্রিত এবং সে নামাযও পড়ে। তার তো নামায কবূল হচ্ছে না। একটা পর্যায়ে সে হারাম উপার্জন ছেড়ে দিল। প্রশ্ন হচ্ছে, হারাম উপার্জনের সময় সে যে সালাতগুলি আদায় করেছিল তা কি পুনরায় কাযা করতে হবে? নাকি সে বিগত সালাতগুলির জিম্মাদরী থেকে মুক্ত? ২। হারাম উপার্জনকারী ব্যক্তির কোন ধরণের ইবাদতই কি কবুল হয় না? যেমন সে কোরআন তেলাওয়াতের সাওয়াব কি পাবে?

উত্তর :

১। না, সেগুলো ক্বাযা করতে হবে না।
২। হারাম উপার্জনকারীর কোন ইবাদতই কবূল হয় না বিষয়টি এমন নয়। তবে তার ইবাদাতের মধ্যে হারাম উপার্জন কিছুটা প্রভাব ফেলে এটাও বাস্তব। যার উপার্জন হালাল তার ইবাদাত আর হারাম উপার্জনকারীর ইবাদাত তো এক হতে পারে না। হ্যাঁ, হাদীস শরীফে আছে হারাম উপার্জনকারীর দুআ কবূল হয় না। অনুরূপভাবে হারাম উপার্জন থেকে দান সদকাহ করলেও তা আল্লাহ তাআলা কবূল করেন না।
عَنْ أَبِى هُرَيْرَةَ قَالَ قَالَ رَسُولُ اللَّهِ صلى الله عليه وسلم أَيُّهَا النَّاسُ إِنَّ اللَّهَ طَيِّبٌ لاَ يَقْبَلُ إِلاَّ طَيِّبًا وَإِنَّ اللَّهَ أَمَرَ الْمُؤْمِنِينَ بِمَا أَمَرَ بِهِ الْمُرْسَلِينَ فَقَالَ ( يَا أَيُّهَا الرُّسُلُ كُلُوا مِنَ الطَّيِّبَاتِ وَاعْمَلُوا صَالِحًا إِنِّى بِمَا تَعْمَلُونَ عَلِيمٌ) وَقَالَ (يَا أَيُّهَا الَّذِينَ آمَنُوا كُلُوا مِنْ طَيِّبَاتِ مَا رَزَقْنَاكُمْ) ثُمَّ ذَكَرَ الرَّجُلَ يُطِيلُ السَّفَرَ أَشْعَثَ أَغْبَرَ يَمُدُّ يَدَيْهِ إِلَى السَّمَاءِ يَا رَبِّ يَا رَبِّ وَمَطْعَمُهُ حَرَامٌ وَمَشْرَبُهُ حَرَامٌ وَمَلْبَسُهُ حَرَامٌ وَغُذِىَ بِالْحَرَامِ فَأَنَّى يُسْتَجَابُ لِذَلِكَ
অর্থঃ হযরত আবূ হুরাইরা (রাঃ) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ইরশাদ করেন, হে লোকসকল, নিশ্চয়ই আল্লাহ তাআলা পবিত্র। তিনি পবিত্র ব্যতীত কবূল করেন না। আর আল্লাহ তাআলা নবীদেরকে যে আদেশ করেছেন মুমিনদেরকেও সে আদেশ করেছেন। অতঃপর তিনি এই আয়াতদ্বয় তিলাওয়াত করেন- “হে রসূলগণ, তোমরা হালাল থেকে খাও এবং নেক আমল কর। তোমরা যে আমল কর আমি তা জানি”। “হে ঈমানদারেরা, আমি তোমাদেরকে যে রিযিক দিয়েছি তার মধ্য থেকে হালাল খাও”। এরপর তিনি ঐ লোকের কথা বলেন, যে দীর্ঘ সফরে থাকায় চুল এলোমেলো চেহারা ধুলি ধূসরিত। দুই হাত আসমানের দিকে প্রসারিত করে বলে, হে আমার প্রতিপালক, হে আমার প্রতিপালক। অথচ তার খাবার হারাম, তার পানীয় হারাম, তার পোশাক হারাম এবং সে হারাম দ্বারা লালিত পালিত হয়েছে। কিভাবে তার দুআ কবূল হবে?- সহীহ মুসলিম, হাদীস নং ২৩৯৩; জামে তিরমিজী, হাদীস নং ২৯৮৯

 827,121 total views,  389 views today