প্রশ্ন : আসসালামু আলাইকুম ওয়া রাহমাতুল্লাহ। আমার এক আত্মীয় বিদেশে থাকে। সে আমার কাছে বেশ কিছু টাকা ( প্রায় তিন লক্ষের বেশি ) জমা রাখতে দিয়েছিলেন। আমি সেখান থেকে সাংসারিক প্রয়োজনে প্রায় ২০-২৫ হাজার টাকা খরচ করে ফেলেছি। সে প্রতি বছর প্রায় ৩০-৪০ হাজার টাকার যাকাত প্রদান করেন। সে কিছু দিন আগে আমাকে জানিয়েছে যে, সে একটি জমিন কিনতে চাচ্ছে তাই তার পাওনা টাকা গুলো প্রয়োজন। এখন আমার কাছে তার খরচ করা টাকা পূরণ করে দেয়ার মত সামর্থ্য নেই। আবার আমার নেছাব পরিমান অর্থাৎ ঋণ বাদে ৪২০০০/- টাকা বা স্বর্ণ অলংকারও নেই। তাই যদি তাকে বুঝিয়ে বলি তাহলে হয়তো সে আমাকে যাকাত বাবদ টাকাটা দিয়ে তা পরিশোধ করিয়ে নিবেন। তাই অনুগ্রহ করে আমাকে জানাবেন কি যে, যদি আমি তাকে বলি যে আপনি আমাকে অগ্রিম ২৫০০০/- টাকা যাকাত দিন আমি আপনার ঋণ পরিশোদ করে দিবো। তখন সে আমাকে যদি মৌখিক ভাবে বলে যে ঠিক আছে আমি আপনাকে ২৫০০০/- টাকা যাকাত বাবদ প্রদান করলাম এবং আমিও মৌখিক ভাবে তা গ্রহণ করলাম। এর পর আমি মৌখিক ভাবে তাকে বললাম যে আপনার পাওনা ২৫০০০/- টাকা আমি আপনাকে পরিশোধ বাবদ দিয়ে দিলাম এবং সেও মৌখিক ভাবে তা গ্রহণ করলো। তবে এই ভাবে দেয়ার দ্বারা কি তার যাকাত ও আমার কর্জ পরিশোধ হবে। নাকি বিষয়টি হাতে টাকা দেয়া নেয়ার মাধ্যমে বাস্তবে হতে হবে। অনুগ্রহ করে জানাবেন। জাযাকাল্লাহু খাইরন।

উত্তর :

ওয়া আলাইকুমুস সালাম ওয়া রাহমাতুল্লাহ
না, উক্ত ঋণ যাকাত বাবদ মৌখিকভাবে কাটাকাটি করে নিলে যাকাত আদায় হবে না।
বরং এর সহীহ পদ্ধতি হল, যদি আপনি যাকাত গ্রহনের উপযুক্ত হন (যাকাত গ্রহনের উপযুক্ত কোন ব্যক্তি এই লিঙ্কে http://muftihusain.com/ask-me-details/?poId=513 আপনি তা বিস্তারিত জানতে পারবেন) তবে তিনি আপনাকে প্রথমে যাকাতের অর্থ নিঃশর্তভাবে হস্তান্তর করে বুঝিয়ে দিবেন এবং আপনি তা কবজা করবেন। অতঃপর তিনি আপনার নিকট থেকে তার পাওনা টাকা উসূল করে নিবেন। এভাবে তার যাকাত ও আপনার ঋণ উভয়টি আদায় হয়ে যাবে।–আদ্দুররুল মুখতার ২/২৭১; আল বাহরুর রায়েক ২/৩৭০

 821,051 total views,  703 views today