প্রশ্ন : আমি একটি মেডিক্যাল হাসপাতালে ইন্টার্নশীপ করছি। এখানে বিভিন্ন ঔষধ কোম্পানি এসে তাদের নিজস্ব ঔষধ লেখার জন্য আবদার করেন। আর তাদের ঔষধ লিখলে তারা ফ্রীতে আমাদের প্রয়োজনীয় ঔষধ দেন এবং বলে দেন যখন যে ওষুধের প্রয়োজন পড়বে তা যেন তাদের কাছ থেকে নিই। আমার শিক্ষক আমাকে স্কয়ার এবং রেনেটা কোম্পানির ওষুধ লিখতে বলেছে। আমার প্রশ্ন ১। ওষুধ যদি ভালো মানের না হয়, তাহলে করণীয় কি? ২। তাদের দেওয়া ওষুধগুলো কি নেওয়া যাবে বা চেয়ে নেওয়া কি বৈধ হবে? এটা কি ঘুষের মধ্যে পড়বে? ৩। কেউ এধরনের কোন ব্যবসায়িক কাজে সুপারিশ এর সময় বিনিময়ে কোন কিছু দিতে চাইলে তা নেওয়া হালাল না হারাম?

উত্তর :

১। ঔষধের গুণগতমান ভালো না হলে তা লিখা মানে রোগীকে বিপদে ফেলে দেওয়া এবং আমানতের খেয়ানত করা।
২+৩। নিম্নোক্ত লিঙ্কে আপনি আপনার প্রশ্নের উত্তর পেয়ে যাবেন ইংশাআল্লাহ-
http://muftihusain.com/ask-me-details/?poId=2356
উপরোক্ত লিঙ্কের সারসংক্ষেপ হচ্ছে, যদি ঔষধ কোম্পানিগুলো ডাক্তারদেরকে ঔষধের পরিচিতি এবং রোগীর উপর প্রয়োগ করে এর কার্যকারিতা পর্যবেক্ষণ ও অভিজ্ঞতা অর্জনের জন্য ঔষধ দিয়ে থাকে আর চিকিৎসকও তা রোগীদেরকে বিনামূল্যে দিয়ে এর কার্যকারিতা সম্পর্কে অভিজ্ঞতা অর্জন করেন তবে এতে কোন সমস্যা নেই। তবে যদি চিকিৎসক উক্ত ঔষধগুলো বিক্রি করে পয়সা উপার্জন করেন অথবা কোম্পানিগুলো চিকিৎসককে শুধুমাত্র তাদের ঔষধ লিখার জন্য উৎকোচ হিসেবে উক্ত ঔষধ দিয়ে থাকে তাহলে তা গ্রহন করা বা চাওয়া বৈধ হবে না।

 829,661 total views,  28 views today