প্রশ্ন : আস্‌সালামু আলাইকুম। মুহতারাম, আমরা অনেকেই জানি যে, নামাযে হাত নাভীর নীচে বাঁধতে হয়। কিন্তু কিছুদিন পূর্বে আমার এক মামার কাছে শুনলাম যে, বুখারীর হাদীসের ৭৪০ নং হাদীস অনুযায়ী নামাযে হাত নাকি বুকের উপর বাঁধতে হয়। তিনি এর দলীল দিলেন যে, কুরআনে বলা আছে- তোমরা যদি আল্লাহর ভালোবাসা পেতে চাও তবে রাসুলের অনুসরণ কর। এমতাবস্থায় মুহতারামের কাছে আমার প্রশ্ন- নামায প্রকৃতপক্ষে আমরা কোথায় হাত বাঁধবো? জাযাকাল্লাহু খয়রন।

উত্তর :

ওয়া আলাইকুমুস সালাম
প্রিয় দ্বীনী ভাই আপনার উত্তর দিতে কিছুটা বিলম্ব হওয়ায় আন্তরিকভাবে দুঃখিত।
বুকের উপর হাত বাঁধা সংক্রান্ত যে হাদীসগুলো পেশ করা হয় তার কোনটিই সহীহ নয়। চার ইমামের কেউই বুকের উপর হাত বাঁধাকে সুন্নাত বলেননি। কোন হাদীসের কিতাবেও এ সংক্রান্ত কোন শিরোনাম কেউ কায়েম করেননি। বরং নামাযে নাভির নীচে হাত বাঁধা সুন্নাত। এ ব্যাপারে একাধিক সহীহ হাদীস রয়েছে। হযরত ওয়ায়েল ইবনে হুজর (রাঃ) থেকে বর্ণিত-
رأیت النبی ۔صلى الله عليه وسلم۔ وضع یمینہ علی شمالہ فی الصلاة تحت السرة
অর্থঃ আমি রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে নামাযের মধ্যে ডান হাতকে বাম হাতের উপর নাভির নীচে হাত বাঁধতে দেখেছি।–মুসান্নাফে ইবনে আবী শাইবা, হাদীস নং ৩৯৫৯
হাদীসটির সনদ সহীহ।
হযরত আবূ জুহাইফাহ (রাঃ) বলেন-
أن علیاؓ قال إن من السنۃ فی الصلاة وضع الأکف علی الأکف فی الصلاة تحت السرة
অর্থঃ হযরত আলী (রাঃ) বলেন, নামাযে (হাত বাঁধার মধ্যে) সুন্নাত হল ডান হাতকে বাম হাতের উপর নাভির নীচে রাখা।–সুনানে আবূ দাউদ, হাদীস নং ৭৫৬; মুসনাদে আহমাদ, হাদীস নং ৮৭৫
আর আপনার মামার কথা “বুখারীর হাদীসের ৭৪০ নং হাদীস অনুযায়ী নামাযে হাত বুকের উপর বাঁধতে হয়” কথাটিও সঠিক নয়। বুখারী শরীফে বুকের উপর হাত বাঁধা সংক্রান্ত কোন হাদীস নেই।
আপনি নামায সংক্রান্ত এ মাসআলাসহ অন্য যে কোন মাসআলা দলীলভিত্তিক বিস্তারিত জানতে চাইলে মাওলানা আব্দুল মতিন সাহেব কর্তৃক রচিত “দলিলসহ নামাযের মাসায়েল” নামক কিতাবটি দেখতে পারেন। যা মাকতাবাতুল আযহার (বাড্ডা, ফোন ০১৯২৪০৭৬৩৬৫) কর্তৃক প্রকাশিত হয়েছে।

 832,295 total views,  659 views today