প্রশ্ন : আসসালামু আলাইকুম। হযরত আপনার সাইটটি খুব ভাল লাগে। কারণ এখানে অনেক কিছু শিখতে পারছি। যা আমার দ্বীন শিক্ষার ক্ষেত্রে উপকার হচ্ছে। দুআ করি আল্লাহ যেন আপনাকে দীর্ঘ নেক হায়াত দান করেন। ১। উমরী ক্বাযা নামায কি ওয়াক্তি নামাযের আগে বা পরে পড়া যায়? ২। আমি পাঁচ ওয়াক্ত নামাযের উমরী ক্বাযা দিনে বা রাতে যে কোনো সময় একসাথে সবগুলো ওয়াক্তের নামায পড়তে পারব? ৩। আমার লাইফে অসংখ্য ওয়াক্তের নামায ক্বাযা আছে। তাওবা করলে আল্লাহ সেগুলোর গুনাহ মাফ করবেন? ৪। প্রসাব করতে গিয়ে অসাবধানতাবশত এক ফোটা পেশাব প্যান্টে লেগে যায় তখন যদি কাপড় পাল্টানোর সুযোগ না থাকে সে কাপড় দিয়ে কি নামায পড়া যাবে?

উত্তর :

ওয়া আলাইকুমুস সালাম
১। হ্যাঁ, পড়া যায়।
২। হ্যাঁ, পারবেন। তবে নামাযের নিষিদ্ধ সময়ে না পড়া চাই। নামাযের নিষিদ্ধ সময় হচ্ছে সূর্যোদয়ের সময়, দ্বিপ্রহরের সময় এবং সূর্য হলুদ হওয়া থেকে নিয়ে সূর্যাস্ত পর্যন্ত সময়।
৩। ক্বাযা করার পাশাপাশি খালেছভাবে তাওবা করে নিলে আল্লাহ তাআলা মাফ করে দিবেন ইংশাআল্লাহ।
৪। হ্যাঁ, যদি মাত্র এক ফোটা লেগে থাকে তবে পড়া যাবে। নিম্নোক্ত লিঙ্কে আপনি এ ব্যাপারে আরো বিস্তারিত জানতে পারবেন ইংশাআল্লাহ-
http://muftihusain.com/ask-me-details/?poId=2534
সুত্রসমূহঃ আদ্দুররুল মুখতার ৩১৬; আল বাহরুর রায়েক ১/১২৫

 824,832 total views,  297 views today