প্রশ্ন : আসসালামু আলাইকুম হযরত আমার প্রশ্ন গুলো হচ্ছে: ১। হাত দিয়ে মুসাফাহা করার সময় যে ইয়াগফিরলানা ওয়ালাকুম বলে এটা দিয়ে কি বুঝায়? ২। কাউকে কিছু দিলে বা কোনো কিছুর জন্য যে শুকরিয়া বলে এই জবাব শুনে দেনেওয়ালা বা শুননেওয়ালা ব্যক্তি কি বলতে পারে? আফওয়ান বা কি? আফওয়ান দ্বার কি বুঝায়? ৩। কেউ যদি দুআ চায় বা করতে বলে তখন ফি আমানিল্লাহ বলব নাকি ইনংশাআল্লাহ বলবো? না অন্য কিছু? আর মুনাজাত দোয়া করা তো পরে আমি জানতে চাচ্ছি তাৎক্ষণিক কি বলা? কেউ বললে?

উত্তর :

ওয়া আলাইকুমুস সালাম
১। রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ইরশাদ করেন-
إِذَا الْتَقَى الْمُسْلِمَانِ فَتَصَافَحَا وَحَمِدَا اللَّهَ عَزَّ وَجَلَّ وَاسْتَغْفَرَاهُ غُفِرَ لَهُمَا
অর্থঃ যখন দুজন মুসলমান সাক্ষাত করে মুসাফাহা করে এবং আল্লাহ তাআলার প্রশংসা ও একে অপরের জন্য ইস্তেগফার করে, তাদেরকে ক্ষমা করে দেওয়া হয়।–সুনানে আবূ দাউদ, হাদীস নং ৫২১৩
উপরোক্ত হাদীস থেকে বুঝে আসে মুসাফাহা করার সময় আল্লাহ তাআলার প্রশংসা ও একে অপরের জন্য ইস্তেগফার করা মুস্তাহাব। এজন্য يَغْفِرُ اللَّهُ لَنَا وَلَكُمْ পড়া হয়। যার অর্থ হল আল্লাহ তাআলা আমাদের এবং তোমাদের মাফ করে দিন। “ইয়াগফিরলানা ওয়ালাকুম” না পড়ে “ইয়াগফিরুল্লাহু লানা ওয়া লাকুম” পড়বে।
২। না আফওয়ান নয়। জাযাকাল্লাহ বলতে পারে।
৩। উভয়টি বলা যেতে পারে। তবে ইংশাআল্লাহ বললে পরে তার জন্য দুআ করা উচিত।

 827,594 total views,  109 views today