প্রশ্ন : আসসালামু আলাইকুম, আমি মাসআলা দেখেছি যে, রোযা রাখার পর পেস্ট দিয়ে দাত মাজলে মাকরূহ হয়। কিন্তু যদি আমি পেস্ট দিয়ে দাত ব্রাশ না করি তাহলে মুখে বেশী দুর্গন্ধ হয় এবং মুখ ভার হয়ে থাকে। যার কারনে নামায ও অন্যান্য ইবাদাত করে মজা পাই না। আমি রোযা একটু বেশি রাখি যেমন- আমি সুন্নাত রোযা রাখি (প্রতি সাপ্তাহে সোমবার ও বৃহস্পতিবার এবং প্রতি আরবী মাসের ১৩, ১৪, ১৫ তিন দিন)। আজকেও আমি দাত পেস্ট দিয়ে ব্রাশ করেছি, যা খুবই সতেজ লাগছে। এখন আমার জানার বিষয় হলো কোনটা করবো?

উত্তর :

ওয়া আলাইকুমুস সালাম
রোযা অবস্থায় পেস্ট দিয়ে ব্রাশ করা মাকরূহ। আর পেস্টের কোন অংশ পেটে চলে গেলে তো রোযাই ভেঙ্গে যাবে। আর আপনি মুখের যে ভার অবস্থা বা দুর্গন্ধ নিয়ে পেরেশান হচ্ছেন তা তো আল্লাহ তাআলার নিকট খুবই পছন্দনীয়। কাজেই আল্লাহ তাআলার পছন্দনীয় জিনিস দূর করতে এত পেরেশান কেন? রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ইরশাদ করেন-
وَالَّذِي نَفْسِي بِيَدِهِ لَخُلُوفُ فَمِ الصَّائِمِ أَطْيَبُ عِنْدَ اللَّهِ تَعَالَى مِنْ رِيحِ الْمِسْكِ
অর্থঃ ঐ সত্ত্বার কসম যার হাতে আমার প্রান, নিশ্চয়ই রোযাদারের মুখের দুর্গন্ধ আল্লাহ তাআলার নিকট মেশকের চেয়েও অধিক পছন্দনীয়।–সহীহুল বুখারী, হাদীস নং ১৮৯৪
কাজেই ব্রাশ না করে ভালো ভাবে মেসওয়াক করুন। রোযারও ক্ষতি হবে না এবং সুন্নাতও আদায় হবে। আর ব্রাশ করতে হলে সন্ধার পরে করুন।

 832,549 total views,  913 views today