প্রশ্ন : আসসালামু আলাইকুম, আমি দ্বাদশ শ্রেনীতে পড়ি। আমার একটা মেয়ের সাথে সম্পর্ক আছে সেও দ্বাদশ শ্রেণিতে পড়ে। বর্তমানে দেশের পরিবেশ এর কথা চিন্তা করে এবং আমি আল্লাহকে ভয় পেয়ে গুনাহ থেকে হেফাযত থাকার জন্য পরিবারের কাওকে না জানিয়ে একজন ইমামের মাধ্যমে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হই। আমাদের দুইজনের পরিবারের কেও এখনো জানে না এই ব্যাপারটা। আমরা এখনো যার যার বাসায় থাকি। ৩ মাস হালকা রাগ করে ১ তালাক দিয়েছিলাম। পরে আবার মিল হয় আমাদের। তার কিছু দিন পরে আমার স্ত্রীর সাথে ফোনে অনেক কথা কাটাকাটি হয়। আমি এতই রেগে গেছিলাম যে এক সাথে ৩ তালাক দিয়ে ফেলছিলাম। আসলে আমি তখন তালাক সম্পর্কে শরীয়ত এর বিধান জানতাম না। পরে নিজের এই কাজ এ খুব লজ্জিত হই এবং নিজেদের ভুল বুঝতে পারি। অনেকে বলে যে তালাক হয়ে গেছে, কিন্তু আমাদের দুজন দুজনকে ছাড়া থাকা সম্ভব না। অনেকে বলছে তোমরা এখন স্বামী স্ত্রী না, সেইটা আমার স্ত্রীকে বলছি যে তালাক হয়ে গেছে কিছু করার নাই। কিন্তু সে এগুলা শুনে না সে আমাকে আত্নহত্যার হুমকি দেয়। বাসায় এসে উঠবে এগুলা বলে। তারপর আমরা আল্লাহর কাছে তওবা করেছি আল্লাহ ক্ষমাশীল আমাদের নিশ্চয় ক্ষমা করবেন। আমরা এখন স্বামী স্ত্রীর এর মতই আছি। এ বিষয়ে আমাদের অবস্থান বিবেচনা করে সুন্দর ও মার্জিত একটি সমাধান দিবেন ইনশাআল্লাহ।

উত্তর :

ওয়া আলাইকুমুস সালাম
আপনার প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার জন্য নিম্নোক্ত বিষয় জানা প্রয়োজন।
আপনাদের উভয়ের পারিবারিক স্ট্যাটাস বিস্তারিত জানাবেন। অর্থাৎ আপনাদের উভয় পরিবারের (অর্থাৎ আপনার ও উক্ত মেয়ের পিতামাতার) অর্থনৈতিক অবস্থা, সামাজিক অবস্থা, পেশাগত অবস্থা, সন্মানগত অবস্থা ইত্যাদি। পাশাপাশি আপনার নিজের অর্থনৈতিক অবস্থাও জানাবেন। এগুলো জানার পরে আপনার প্রশ্নের উত্তর দেওয়া হবে ইংশাআল্লাহ।
তবে এতটুকু নিশ্চিত যে বর্তমানে আপনাদের স্বামী স্ত্রীর মত আচরণের কোন সুযোগ নেই। এখন আপনারা যাই কিছু করবেন সব যিনা হবে। তাই পূর্বের কৃতকর্মের জন্য খালেছভাবে তাওবা করে এখনই পৃথক হয়ে যাবেন। আর আপনাদের পূর্বের বিবাহের শরয়ী অবস্থান এবং ভবিষ্যতে আপনারা নতুন করে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হতে পারবেন কিনা এটা জানার জন্য উপরোল্লিখিত বিষয়গুলো জানাতে হবে।

 829,664 total views,  31 views today