প্রশ্ন : আসসালামু আলাইকুম, হযরত মসজিদের দানবাক্সে বা মসজিদের কৌটায় যে টাকাগুলো পড়ে, সাধারনত জানা থাকে না যে, সে টাকাগুলো সদকা, মান্নত, নাকি সাধারন দান, সব মসজিদগুলোতেই দেখা যায় এই টাকা দিয়ে তারা ইমামের বেতন দেন, অথবা মসজিদ নির্মানের কাজে লাগান। ১। এইভাবে এই টাকা দিয়ে কি ইমামের বেতন বা মসজিদ নির্মানের কাজ করা যাবে? ২। যদি না যায় তাহলে এই টাকাগুলো কি করবে?

উত্তর :

ওয়া আলাইকুমুস সালাম
১+২। মসজিদে যাকাত, ফেতরা, মান্নত ইত্যাদি ব্যবহারের কোন খাত নেই। কেননা এগুলো আদায় হওয়ার জন্য কোন গরীবকে মালিক বানিয়ে দেওয়া জরুরী। এগুলো মসজিদ নির্মাণ বা স্টাফদের বেতন বাবদ খরচ করা জায়েয নেই। আর সাধারণত মসজিদে মানুষ কেবল নফল দান খয়রাত-ই করে থাকে। তাছাড়া মসজিদের মিম্বার থেকেও এ মাসআলাগুলো বলা হয় যে, মসজিদে কেবল নফল দান করতে হয়। তাই ধরে নেওয়া হবে মসজিদের দানবাক্সে জনসাধারণ যে দান খয়রাত করে থাকে তা নফল দান। কাজেই তা থেকে ইমামের বেতন দেওয়া অথবা মসজিদ নির্মানের কাজে লাগানো জায়েয। তবে কেউ যদি মাসআলা না জানার দরুন ভিন্ন কোন খাতে মসজিদে দান করে আর সেটা জানা যায় তবে তা তাকে ফিরিয়ে দিতে হবে যাতে তা সঠিক খাতে ব্যবহৃত হয়।–হাশিয়ায়ে তাহতাবী আলাল মারাকী, পৃষ্ঠা ৬৯৩; আল বাহরুর রায়েক ২/৫২১

 833,287 total views,  502 views today