প্রশ্ন : ১। বীর্য বিছানায় অথবা কম্বলে লেগে গেলে করণীয় কি? কারণ কম্বল এত তাড়াতাড়ি ধুয়া যায় না, এই অবস্থায় শুকিয়ে গেলে এতে শুইলে আমার পাক কাপড় কি নাপাক হয়ে যাবে? ২। চার রাকাআত বিশিষ্ট নামাযে প্রথম রাকাআত ছুটে গেলে ইমাম দ্বিতীয় রাকাআতে বসে যখন তাশাহুদ পড়বেন তখন কি আমায় তাশাহুদ পড়তে হবে? দলীল সহ বলবেন অনুরোধ রহিল অথবা চতুর্থ রাকাআতে এসে ইমামকে শেষ বৈঠকে পেয়েছি। এখানেও কি আমায় পূর্বের ন্যায় তাশাহুদ পড়তে হবে? আর যদি পড়তে হয়, আমি তাশাহুদ শুরু করেছি এমতাবস্থায় ইমাম উভয়দিকে সালাম ফিরিয়ে নিচ্ছেন, আমি কি তাশাহুদ শেষ করে দাঁড়াব না তাশাহুদ পড়া ছেড়ে দিয়ে দাঁড়িয়ে যাব। আশা করি উত্তর দিয়ে আমায় বাধিত করবেন।

উত্তর :

১। বীর্য শুকিয়ে গেলে এর দ্বারা শরীর নাপাক হবে না।

আর তা বিছানার চাদর অথবা কম্বলে লাগলে তা পাক করা নিয়ম হল তিনবার ধৌত করা এবং প্রত্যেকবার কাপড় ভালো করে এমনভাবে নিংড়ানো, যাতে আর পানি না পড়ে। ভালো করে না নিংড়ালে তা পাক হবে না।–আল বাহরুর রায়েক ১/৪১০; ফাতাওয়া হিন্দিয়া ১/৪২; আদ্দুররুল মুখতার ১/৩৩১, ৩৩২

২। হ্যাঁ, মাসবূক ব্যক্তি (অর্থাৎ যিনি ইমামের সাথে প্রথমের কিছু অংশ পাননি) ইমামের সাথে পাওয়া প্রত্যেকটি বৈঠকেই তাশাহহুদ পড়বে।

আর যদি শেষ বৈঠকে পায় এবং ইমাম সাহেব তাশাহহুদ শেষ করার পূর্বেই সালাম ফিরিয়ে দেয় তবে তাশাহহুদ শেষ করে অতঃপর দাঁড়াবে।-কিতাবুল আছার, পৃষ্ঠা ৫৬; হাশিয়ায়ে তাহতাবী আলাল মারাকী, পৃষ্ঠা ২৫০, ২৫১

 820,897 total views,  549 views today