প্রশ্ন : আসসালামু আলাইকুম। মুহতারাম, সেদিন আমি আমার বাবার কাছে একটা হাদীসের ব্যাপারে বলেছিলাম যে, “যে আমার নাম শুনে আমার উপর দরুদ পড়লো না, সে যেন তার স্থান জাহান্নামে করে নেয়।” এটা বলে বললাম যে এরকমই মনে হয় একটা হাদীস আছে আমি শুনেছি বা দেখেছি। আব্বা বললেন, আমি জানি না। তবে নবীর নাম শুনলে দরুদ পড়তে হয় এটাই জানি। এমতাবস্থায় মুহতারামের কাছে আমার প্রশ্ন এই যে, ১। উপরোল্লিখিত কথার দ্বারা আমি ঈমানহারা হলাম না তো বা রাসূলের বদদোয়ার যোগ্য হয়ে গেলাম নাতো? ২। উপরোল্লিখিত যে হাদীসটি উপস্থাপন করা হয়েছে তা কি সঠিক, এরূপ কোনো হাদীস কি আসলেই আছে?

উত্তর :

ওয়া আলাইকুমুস সালাম
১। না, ঈমানহারা হননি। তবে না জেনে এমনটি বলা চরম অন্যায় হয়েছে। হাদীস শরীফে আছে, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ইরশাদ করেন-
مَنْ كَذَبَ عَلَيَّ فَلْيَتَبَوَّأْ مَقْعَدَهُ مِنْ النَّارِ
অর্থঃ যে ব্যক্তি আমার প্রতি মিথ্যারোপ করল, সে তার ঠিকানা জাহান্নাম করে নিল।–সহীহুল বুখারী, হাদীস নং ১০৭
কাজেই খালেছভাবে তাওবা করে নিবেন এবং ভবিষ্যতে এমন না জেনে হাদীস বলা থেকে বিরত থাকবেন।
২। না, হুবহু এমন কোন হাদীস খুজে পাওয়া যায় না। তবে হাদীস শরীফে এমন ব্যক্তিকে চূড়ান্ত পর্যায়ের কৃপণ বলা হয়েছে। অন্য হাদীসে এমন ব্যক্তির জন্য ধ্বংসের বদদুআ করা হয়েছে।

 833,742 total views,  957 views today