প্রশ্ন : (আমি অনেক সময় আমার নানিকে ঠান্ডার কারণে বুকে,পিঠে এবং ঘাড়ে তেল মেখে দিতাম। আমি তখন বিবাহ করি নাই। তাই আমার উত্তেজনা ছিলো অনেক বেশী। আমি তেল মালিশ করতে চাইতাম না। কিন্তু নানীর পিড়াপীড়িতে করতে বাধ্য হতাম। প্রথম প্রথম সংযত থাকতে পারলেও পরে আর পারি নাই। বিভিন্ন সময় খায়েশের সাথে তার শরীর,স্তন ইত্যাদি মালিশ করতে করতে খুব মজা পেতাম এবং বীর্যপাত হতো। মজা পাওয়ার পর থেকে ইচ্ছা করেই আরো বেশী করে করতাম। এখন এর মাসআলা কি? আমার নানী এখন মৃত। তওবা করার কোন উপায় আছে কি? বিস্তারিত জানালে উপকৃত হব।) এখানে আমার আরো জানা উদ্দেশ্য ছিল যে- (এক) এর দ্বারা আমার মা-বাবার মাঝে তালাক বা সম্পর্কের বিচ্ছিন্নতা আসবে কিনা? (দুই) আর আমি নানীর স্তন ধরে যে মজা পেতাম এবং বীর্যপাত হতো সেটা নানী জানতেন না। এতে করে কী নানী গোনাহের অংশীদার হবেন?

উত্তর :

(এক) আমি আপনার প্রশ্ন বুঝেই উত্তর দিয়েছিলাম। আপনার মা-বাবার মাঝে বিচ্ছন্নতা এলে তা বলে দিতাম। আপনার এই কৃতকর্মের কারনে আপনার পিতা মাতার সম্পর্কে কোন সমস্যা হবে না।

(দুই) অবশ্যই, তিনিও গোনাহগার হবেন। বালেগ নাতি বা পুতি দ্বারা নিজের( নানী বা দাদী কর্তৃক) বুক, পেট ও পিঠ মালিশ করানো অত্যন্ত গর্হিত কাজ।–বাদায়েউস সানায়ে ৫/৩৫৩;

 832,527 total views,  891 views today